AM-ACCOUNTANCY-SERVICES-BBB

জৈন্তাপুরে বন্ধুকে খুনের স্বীকারোক্তি দিল ৩ জন

বিশ্বনাথ নিউজ ২৪ ডট কম :: ডিসেম্বর - ১৯ - ২০১৫ | ১১: ০৫ অপরাহ্ণ

Syl Pic2

Syl Picনিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট:: সিলেটের জৈন্তাপুরে স্কুলছাত্র পুলক চন্দ্র রাউৎ (১৪) কে খুন ও লাশ গুমের ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে তারই তিন বন্ধু। তারা হচ্ছে সহোদর আবদুল কুদ্দুস ও শাহাব উদ্দিন সাবু এবং স্বপন বিশ্বাস। শনিবার সন্ধ্যায় সিলেট মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক কুদরত-ই-খুদা তাদের জবানবন্দি গ্রহণ করেন। পরে অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় কুদ্দুস ও সাবুকে কিশোর সংশোধনাগারে এবং স্বপনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

পুলক চন্দ্র রাউৎ, আবদুল কুদ্দুস ও শাহাব উদ্দিন সাবু জৈন্তাপুরের চারিকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ে এবং স্বপন জৈন্তাপুর তৈয়ব আলী টেকনিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী।

তিন বন্ধুর আদালতে স্বীকারোক্তি প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিউল কবির।

তিনি জানান, গ্রেফতারের পরপরই এই তিনজন পুলক হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছিল। আজ আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিযেছে।

গত ১০ ডিসেম্বর প্রাইভেট পড়তে গিয়ে বাড়ি ফিরেনি পুলক। ওইদিনই তাকে ‘দুর্ব্যবহারের’ কারণে তিন বন্ধু মিলে খুন করে। পরে তার লাশ সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুরের পাখিটিকি এলাকার ভুঁইয়া ফিশারিজের পাশে গুম করা হয়। পুলককে ময়মনসিংহের ত্রিশালে পাওয়া গেছে, এ কথা বলে পুলকের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে বিকাশের মাধ্যমে ৬ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় তারা। পরে আবারও টাকা চাইলে পুলকের পরিবারের সন্দেহ হয়। তারা পুলিশকে বিষয়টি জানানোর পর মোবাইল ট্রাকিংয়ে ধরা পড়ে ঘাতকরা।

আরো সংবাদ