বিশ্বনাথের প্রথম অনলাইন পত্রিকা

বিশ্বনাথে নিজ গ্রামবাসীর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন ড. অরূপরতন চৌধুরী

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সমাজসেবায় একুশে পদকপ্রাপ্ত, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দসৈনিক, মাদক ও ধুমপান বিরোধী সংগঠন ‘মানস’র প্রতিষ্ঠাতা, ঢাকা বারডেম হাসাপাতালের দন্ত বিভাগের প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা ও প্রখ্যাত রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী অধ্যাপক ড. অরূপরতন চৌধুরীকে সস্ত্রীক গণসংবর্ধনা প্রদান করেছে তার নিজ গ্রাম সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের আকিলপুরের বাসিন্দারা।

তিনি ওই গ্রামের শেষ জমিদার শৈলেন্দ্র কুমার চৌধরী ও প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক ও শিক্ষাবীদ অধ্যাপক ড. মঞ্জুশ্রী চৌধুরীর দ্বিতীয় পুত্র। সোমবার দুপুরে স্থানীয় আকিলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের মাঠে ড. অরূপরতন চৌধুরী সংবর্ধনা পরিষদ-আকিলপুরের উদ্যোগে তাকে গণসংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

সংবর্ধনার প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক ড. অরূপরতন চৌধুরী বলেন, কয়েক দশক পরে নিজের স্মৃতি বিজরিত গ্রামে এসে প্রাণটা যেন জুড়িয়ে গেল। আবেগে আপ্লুত হয়ে যাচ্ছে মন। আমি আমার এলাকার জন্যে কিছু করতে চাই। না করতে পারলে জীবনে বড় ধরণের একটা অতৃপ্তি থেকে যাবে। মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণে যে কি যাদুকরী প্রভাব ছিল। সেই ভাষণে পাগলপারা হয়ে মুক্তিযুদ্ধে ছুটে যাই। একাত্তরের মে মাসে আমি আগরতলার কলেজ টিলাতে কিছুদিন মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করার পর জুন মাসের প্রথম দিকে পৌঁছে যাই কোলকাতা স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে।

ড. অরূপরতন চৌধুরী সংবর্ধনা পরিষদের আহবায়ক মরম আলীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আকিলপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিমাংশু রায় হিমেলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত গণসংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন লামাকাজী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, সাবেক চেয়ারম্যান ও ড. অরূপরতন চৌধুরী সংবর্ধনা পরিষদের উপদেষ্টা লালা মিয়া, ড. অরূপরতন চৌধুরীর সহধর্মিনী গৌরী চৌধুরী। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ডা. শাহনুর হোসাইন, রাগীব-রাবেয়া উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক একেএম ছিফত আলী, মুন একাডেমীর অধ্যক্ষ আমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া, আকিলপুর গ্রামের সুভাষ চক্রবর্তী শংকর, জাতীয় পদকপ্রাপ্ত যুব সংগঠক আফিকুর রহমান আফিক, আকিলপুর গ্রামের ফরিদ মিয়া।

শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন জইনুদ্দিন, গীতা পাঠ করেন মঙ্গলগীরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাদল আচার্য্য ও মানপত্র পাঠ করেন আকিলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মাসুদা আক্তার।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ ফয়েজ আহমদ সেবুল, মদনমোহন কলেজের প্রভাষক মিহির মোহন, সিলেট বেতারের গীতিকার সরোয়ার হোসেন চেরাগ, বিশ্বনাথ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, স্থানীয় ইউপি সদস্য ফয়ছল আহমদ, গয়াছ উদ্দিন খান, মুরব্বী শামসুদ্দিন প্রমুখ।


Endofcontent

Endofcontent
You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!