আল আমিন ব্রিকস্ ফিল্ড AM-ACCOUNTANCY-SERVICES-BBB

সিসি ক্যামেরা লাগানোতে ভোটাদের গোপনীয়তা নষ্ট হয়নি

বিশ্বনাথ নিউজ ২৪ ডট কম :: অক্টোবর - ২৩ - ২০২২ | ৪: ১৭ অপরাহ্ন

ak 1666515258

ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা লাগানোতে ভোটাদের গোপনীয়তা নষ্ট হয়নি। এ নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য না দিতে সবাইকে আহ্বান জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

রোববার (২৩ অক্টোবর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ ব্যাখ্যা দেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সংগঠনের সহ-সম্পাদক ও জনসংযোগ পরিচালক এসএম আসাদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ভোটকক্ষের গোপন বুথে সিসি ক্যামেরা স্থাপন নিয়ে কারো কারো বক্তব্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়েছে।
প্রচারিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভোট কেন্দ্রে গোপন বুথে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে দেখার জন্য কে কাকে ভোট দিচ্ছেন তা মানুষের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন করছে। গাইবান্ধা-৫ আসনের উপনির্বাচনে সিসি ক‌্যামেরা লাগিয়ে নাগরিকদের মৌলিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করেছে নির্বাচন কমিশন।
এই ধরনের বিবৃতি কেবল ভুল এবং বিভ্রান্তিকর। বাস্তবতা হলো, জাতীয় সংসদের গাইবান্ধা-৫ আসনের ৩৩টি শূন্য আসনে নির্বাচনের জন্য ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের পুরো প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করতে নির্বাচন কমিশন ভোটকেন্দ্রে সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়েছে। পেছনের ঘরে ভোটাররা কাকে ভোট দিয়েছেন তা দেখার উপায় নেই। তবে, ভোটারকে নিয়ে গোপন কক্ষে কেউ প্রবেশ করেছে কিনা, বা নির্বাচক ছাড়া অন্য কেউ প্রবেশ করেছে কিনা, একই সময়ে একাধিক ব্যক্তি প্রবেশ করেছে কিনা, ভোট প্রক্রিয়া চলাকালীন কেউ উঁকি দিয়েছে কিনা বা কেউ পাশে দাঁড়িয়েছে কিনা তা দেখা সম্ভব। ইভিএমে কীভাবে ভোট দিতে হবে তা নিয়ে ভোটার শিক্ষা প্রচার শুরু হয়েছে।
এছাড়াও, ভোটাররা তাদের ভোট দেওয়ার জন্য গোপন কক্ষে প্রবেশ করার আগে, কর্তরত নির্বাচন কর্মকর্তারা কিভাবে ভোট দিতে হবে তা ডামি ব‌্যালট ইউনিটে দেখান। তাই ভোটারদের সঙ্গে পেছনের ঘরে গিয়ে ভোট দেওয়ার উপায় দেখানোর সুযোগ নেই অন্য কারও।
গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ ১৯৭২-এর ৩১(৭) ধারা অনুযায়ী, কোনো ভোটার যদি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয় বা কোনো সঙ্গীর সহায়তা ছাড়া ভোট দিতে অক্ষম হয়, তাহলে ভোটকেন্দ্রের কর্মকর্তারা ভোটারের পছন্দের এবং বিশ্বস্ত ব্যক্তিকে গোপন কক্ষে নিয়ে আসতে পারেন। ভোট পোলিং অফিসার, এজেন্ট বা অন্য কোন ব্যক্তি গোপন কক্ষে তার সাথে যেতে পারবে না। এটা স্পষ্ট যে, ভোটকেন্দ্রে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপনের ফলে কোনোভাবেই ভোটের গোপনীয়তা নষ্ট হয়নি।
প্রত্যেক ভোটারের গোপনীয়তা রক্ষায় নির্বাচন কমিশন আইন অনুযায়ী সব ব্যবস্থা নেয়। নির্বাচন কমিশন সকলকে আইন অনুযায়ী সঠিক নির্বাচন পরিচালনায় সহায়তা করার জন্য এবং একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করে এমন বিভ্রান্তিকর মন্তব্য না করার আহ্বান জানিয়েছে।
১২ অক্টোবর, গাইবান্ধা-৫ উপ-নির্বাচন সিসি ক্যামেরা দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়, এবং ইসি অনিয়মের কারণে পুরো নির্বাচন স্থগিত করে, যার ফলে সংস্থাটি সমস্ত মহল থেকে সমালোচনার মুখে পড়ে।

আরো সংবাদ

গুড়া দুধের দাম বেড়েছে কেজিতে ৫০ থেকে ১১০ টাকা

পুলিশের সার্জেন্ট পদে নিয়োগ নিচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ

মাছ চাষে বাংলাদেশ তৃতীয় অবস্থানে

ডলার সংকটে স্থলবন্দরে কমেছে আমদানী

ভারত থেকে বিদ্যুৎ আসছে ১৬ ডিসেম্বর

নারায়ণগঞ্জ ট্যাঙ্কার বিস্ফোরণে এক শ্রমিক নিহত

দেশে বাড়ছে বাচ্ছাদের নিউমোনিয়া ঝুঁকি

মহাসড়কে মটরসাইকেল নিষিদ্ধ হতে পারে

ব্যাংকে জনগণের আমানত নিরাপদ আছে : বাংলাদেশ ব্যাংক

নভেম্বরের শেষে জেঁকে বসতে পারে শীত

মেড ইন বাংলাদেশ উইক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী

হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন ঢাকা থেকেই সম্পন্ন হবে

ঢাকায় বাসে ই-টিকিটিং ব্যবস্থা চালু

আশুলিয়া এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী

সাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ দেখা যাচ্ছে