বিশ্বনাথের প্রথম অনলাইন পত্রিকা

গাড়ির স্ট্যান্ড দখল নিয়ে রণক্ষেত্র বিশ্বনাথের মাহতাবপুর : আহত ৩৫

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সিলেটের বিশ্বনাথে সিএনজি অটোরিকশা গাড়ির স্ট্যান্ড দখল নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অনন্ত ৩৫জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের মাহতাবপুর মাহতাবপুর মাছের আড়ৎ’র সামনে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী এই সংঘর্ষে মাহতাবপুর বাজার রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

এসময় কয়েকটি সিএনজি অটোরিকশা ভাংচুর করা হয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। সংঘর্ষকালে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে প্রায় ঘন্টাখানিক সকল ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। পরে পরিস্থিতি শান্ত হলে যানবাহন চলাচল শুরু করে।

আহতরা হলেন- সবুজ মিয়া (৩৫), জাহাঙ্গির আলম (২২), আনছার আলী (৪০), সুজন মিয়া (২০), ছাদিক মিয়া (২০), ছালেক মিয়া (১৮), জুয়েল আহমদ (২০), ফরহাদ হোসেন (১৮), মনসুর মিয়া (২০), মাফিজ আলী (২১), জসিম উদ্দিন (১৮), সুমন মিয়া (২০), এনায়েত হোসেন (২৫), কবির মিয়া (২৭), আল আমিন (১৭), ইমরান আহমদ (২২), গোলাম আলী (৩০), আব্দুস সালাম (২৮), নজির আহমদ (২৪), আব্দুল হাফিজ (৪২), গোলাম মৌলা (১৯), আনোয়ার আলী (৩৫), আমিনুর রহমান (৩২), মোহাম্মদ আলী (৩২), চামক আলী (২৫), ফারুক মিয়া (২২), রুহেল আহমদ (২৫), সাজ্জাদ মিয়া ২৪)। এর মধ্যে গুরুতর আহতদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রত্যেক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাহতাবপুর মৎস্য আড়তের সামনে অটোরিকশা স্ট্যান্ড দখল নিয়ে দুটি গ্রুপ (অটোরিকশা চালক জোট লামাকাজী নতুন বাজার ২০৯৭ ও ৭০৭) এর মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছে। মঙ্গলবার সকালে ৭০৭ এর শ্রমিকরা অটোরিকশা স্ট্যান্ড দখল নিতে সাইনবোর্ড নির্মাণ করতে গেলে এতে বাঁধা দেন ২০৯৭ এর শ্রমিকরা। এনিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন লাটি-সোটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। প্রায় ঘন্টাব্যাপী এই সংঘর্ষে মাহতাবপুর বাজার রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এসময় বন্ধ হয়ে যায় সিলেট-সুনামগঞ্জ যানবাহন চলাচল। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাটিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলে সড়কের যানবাহন চলাচল সাভাবিক হয়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ৩৫জন লোক আহত হয়েছেন বলে জানা যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামাকাজী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া বলেন, বিষয়টি এলাকার গণ্যমান ব্যক্তিবর্গ আপোষ-মিমাংশার উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। এতে উভয় পক্ষ সম্মতিও প্রকাশ করেছে।

বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা জানান, অটোরিকশা (সিএনজি) গাড়ির স্ট্যান্ড দখল নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে শতাধিক পুলিশ ঘটনাস্থলে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তবে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।


Endofcontent

Endofcontent
You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!