বিশ্বনাথের প্রথম অনলাইন পত্রিকা

বিশ্বনাথে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় আরও ২জন গ্রেফতার

১জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি : ২ জনের রিমান্ড মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দশঘর ইউনিয়নের করছাখালী (শ্রীরামসী) গ্রামে সৌদি আবর প্রবাসী আব্দুল কাদিরের বাড়িতে গত বুধবার দিবাগত রাতে সংঘঠিত ডাকাতির ঘটনায় আরো দুইজনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। ঘটনার পরদিন বৃহস্পতিবার গ্রেফতারকৃত ময়মনসিংহ জেলার নানদাইল থানার আটারোবাড়ী গ্রামের আব্দুস সালামের পুত্র আমির হামজা (২৫)’র তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে নজরুল ইসলাম (৩৩) ও আজিম উদ্দিন উরফে আজিজুল (৩০) নামের আরো দুইজনকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

নজরুল ইসলাম সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার শ্রীরামসী গ্রামের মৃত শামছুল ইসলামের পুত্র ও আজিম উদ্দিন উরফে আজিজুল দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বনুয়া গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র।

ডাকাতির ঘটনায় প্রবাসী আব্দুল কাদিরের স্ত্রী বাদী হয়ে নাজমা বেগম বৃহস্পতিবার রাতে বিশ্বনাথ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ৮।

গ্রেফতারকৃত ৩জনকে শনিবার (৯ নভেম্বর) আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে আমির হামজা এবং অপর দুই আসামী নজরুল ইসলাম ও আজিম উদ্দিন উরফে আজিজুল এর ৪দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান ও রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ঘটনার পরদিন গ্রেফতারকৃত আমির হামজার তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রমা প্রদাস চক্রবর্তীর নেতৃত্বে এসআই দেবাশীষ শর্ম্মা, মিজানুর রহমান, নুর হোসেন ও এসএসআই বিমল চন্দ্র দাশসহ একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে নজরুল ইসলাম ও আজিম উদ্দিন উরফে আজিজুলকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার (৬ নভেম্বর) দিবাগত আনুমানিক ৩টায় করছাখালী (শ্রীরামসী) গ্রামে সৌদি আবর প্রবাসী আব্দুল কাদিরের বাড়িতে ৫/৬ জনের একটি মুখোশধারী ডাকাতদল প্রবাসীর বসতঘরের কলাপসিবল গেইটের তালা ও দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। ডাকাতদল পরিবারের সদস্যদের হাত-পা বেঁধে এবং শিশু হাবিবা ফাইজা (১৪) এর গলায় ছুরি ধরে ঘরে থাকা ৪ভরি স্বর্ণালঙ্কার, নগদ ৪০হাজার টাকা, ৫টি মোবাইল সেট সহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এসময় নাজমা বেগমের কান থেকে স্বর্ণের দোল নিতে গিয়ে মুখোশধারী ডাকাত আমির হামজার মুখের মুখোশ খুলে যায়। ফলে তাকে চিনতে পারেন প্রবাসীর স্ত্রী নাজমা বেগম। পরদিন আমির হামজাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে দীর্ঘদিন ধরে শ্রীরামসী গ্রামে বসবাস করে আসছিল।


Endofcontent

Endofcontent
You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!