বৈশাখী মেলা ভিক্টোরিয়া পার্কে রাখার দাবী জানিয়ে বাসিন্দাদের প্রতিবাদ সভা

বিশ্বনাথ নিউজ ২৪ ডট কম :: এপ্রিল - ১২ - ২০১৬ | ১১: ১১ অপরাহ্ণ | সংবাদটি 403 বার পঠিত

bhishaki melaইউকে ও ইউরোপে বাঙালীদের সর্ববৃহত মিলন মেলা ‘বৈশাখী মেলা’কে বিগত তিন বছরের ন্যায় স্থায়ীভাবে ভিক্টোরিয়া পার্কে রাখার দাবী জানিয়ে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বাংলাটাউন এন্ড উইভার্সফিল্ড রেসিডেন্স ফোরাম। গত ৯ এপ্রিল শনিবার পূর্ব লন্ডনের ওসমানী সেন্টারে আয়োজিত সভায় সভাপত্বি করেন প্রবীন কমিউনিটি নেতা আব্দুল হান্নান। স্থানীয় বাসিন্দা শাহ মিজানুল হক এর পরিচালনায় বক্তারা বলেন, আমরা কখনো মেলা বন্ধ দাবী জানাইনি। তবে এলাকাবাসীর ৯টি যুক্তিসংগত অসুবিদার কথা বিবেচনা করে মেলাকে বাংলাটাউন থেকে ভিক্টোরিয়া পার্কে স্থায়ীভাবে স্থানান্তরিত করার দাবী জানাচ্ছি।
তারা বলেন, বিগত তিন বছর ভিক্টোরিয়া পার্কে বৈশাখী মেলা বৃহত্তর পরিসরে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। হঠাৎ করে আবারো ছোট পরিসরে নিয়ে আসার উদ্যোগ নেয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে উদ্বেগ উৎকন্ঠা দেখা দিয়েছে। তারা বলেন, মাত্র কয়েকজন ব্যক্তি বিশেষের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য বিশাল এলাকাবাসীর অসুবিধার কথা বিবেচনায় না নিয়ে আবারো বৈশাখী মেলা বাংলাটাউন এন্ড উইভার্সফিল্ডে আনার চক্রান্ত হচ্ছে।
প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন ব্রিকলেইন জামে মসজিদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাজ্জাদ মিয়া, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলার আ ম অহিদ আহমদ, কাউন্সিলার আমিনুর খান, কাউন্সিলার সুলক আহমদ, কাউন্সিলার গোলাম রাব্বানী, কাউন্সিলার অলিউর রহমান, কাউন্সিলার শাহ আলম, কাউন্সিলার মোহাম্মদ আনছার মুন্তাকিম, কমিউনিটি নেতা আঙ্গুগুর মিয়া, সুলেমান পির, লকুস মিয়া প্রমুখ। প্রতিবাদ সভায় কয়েক শতাদিক স্থানীয় বাসিন্দা অংশনেন।
সভায় টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলার অহিদ আহমদ বলেন, আমরা স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথে রয়েছি। বিগত দিনে তারা তাদের অসুবিদার কথা জানিয়ে কাউন্সিলের আবেদন করলে কাউন্সিল সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা চিন্তা করে বিশাল পরিসরে ভিক্টোরিয়া পার্কে মেলা স্থানান্তরিত করে। আমরা এখনো আশাবাধি কাউন্সিল স্থানীয় বাসিন্দাদের মতামতের প্রতি গুরুত্ব দিবে।
ব্রিকলেইন মসজিদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাজ্জাদ মিয়া বলেন, বিগত তিন বছর যাবত যারাই ভিক্টোরিয়া পার্কে অত্যন্ত সুন্দরভাবে মেলা পরিচালনা করে আসছে, সেখানেই মেলা হওয়া ভালো। তিনি বলেন, বাংলা টাউনে মেলাতে স্থানীয় মুসল্লিদেরও আপত্তি রয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে আমিও চাই ভিক্টোরিয়া পার্কে মেলা হোক। দিন দিন মেলার পরিধি বৃদ্ধি পেয়েছে তাই ভিক্টোরিয়ার পার্কে হলে সেটি হবে সকলের জন্য ভালো।
স্থানীয় কাউন্সিলার গোলাম রাব্বানী বলেন, বিগত দিনে স্থানীয় ৩ হাজার মানুষ সিগনেচার দিয়ে মেলাকে ভিক্টোরিয়া পার্কে স্থানান্তির করেছিলেন। লকাল বাসিন্দাদের সুবিধা অসুবিধাকে গুরুত্ব দিতে হবে। অন্যতায় সেটি হবে অগণতান্ত্রিক। আমিও মেলাকে ভিক্টোরিয়া পার্কে রাখার দাবী জানাচ্ছি। তিনি বলেন, বাংলা টাউনের ব্যবসায়ী যারা আপত্তি করছেন তারাত মেলাতেও তারে স্টল রেখে তাদের ব্যবসার প্রমোট করতে পারেন। তিনি বলেন, মেলায় এন্টি স্যোশাল বিহেবিয়ার, রাস্তা ঘাট নোংরা করা হয়। এটিত স্থানীয় বাসিন্দাদের উপর অত্যাচারের সামিল।
প্রবীন ব্যবসায়ি আব্দুল হান্নান বলেন, বাংলা টাউনে প্রথম দিকে ছোট্ট পরিসরে মেলা হত। মানুষও কম ছিল। আমরাও ইনজয় করতাম। এখন মানুষ বেড়েছে। মেলার পরিধি বেড়েছে। বাংলা টাউনে মেলা হলে নানান সমস্যার সৃষ্টি হয়। গত তিন বছর যাবত ভিক্টোরিয়া পার্কে মেলা হচ্ছে তাতে কোন ধরনের সমস্যা হচ্ছে না। অথচ একটি পক্ষ তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য স্থানীয় বাসিন্দাদের সুবিধার কথা চিন্তা না করে আবারো বাংলা টাউনে মেলার আনার ষড়যন্ত্র করছে।

সভায় বাংলাটাউন এন্ড উইভার্সফিল্ডে মেলা হলে যে ৯টি অসুবিদার সেগুলি ধরেন । অসুবিদাগুলি হচ্ছে
১) মেলার সময় বাংলা টাউন ও উইভার্সফিল্ড এর বেশ কিছু সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। এর কারনে সৃষ্ট ট্রাফিক সমস্যা এলাকায় চরম ঝামেলার সৃষ্টি করে। ২) মেলার দিন অপরাধ ও অসামাজিক কর্মকান্ড বেড়ে যায়। এই তথ্য পুলিশের রেকর্ডেও রয়েছে।
৩) সড়ক বন্ধ থাকায় এবং ট্রাফিক জামের কারনে কোনো জরুরী এম্বুল্যান্স সার্ভিস আমাদের এলাকার বেশ কিছু অংশে প্রবেশ করতে পারে না এবং পারবেও না। ৪) স্থানীয় বাসিন্দারা নিজেদের গাড়ি নিজের এলাকায় পার্ক করতে গিয়ে চরম সমস্যায় পড়েন। এক্ষেত্রে সীমাহীন দুভোর্গ পোহাতে হয় অনেককেই। ৫) বয়োবৃদ্ধ এবং প্রতিবন্ধিরা মেলার দিন অনেকটা অসহায় ও অস্থির হয়ে পড়েন শব্দ দোষনের কারনে। ৬) ড্রাগ এবং অন্য ধরনের অনুচিত কাজও মেলার দিন আমাদের এলাকায় বৃদ্ধি পায়। ৭) নিজের এলাকায় চলতে গিয়ে গত কয়েকটি মেলায় আমাদের কয়েকজন মা-বোন হামলার বা আক্রমনের শিকার হয়েছেন। এই কারনে মেলার দিনে নিজ এলাকায় চলাফেরা করার ক্ষেত্রে অনেকটা অসহায় ও ঝুকির মধ্যে থাকেন তারা। ৮) আমরা অনেক প্যারেন্টস রয়েছি, যারা অতীতের বিভিন্ন সহিংস ঘটনার কারনে মেলা এলেই আতংকের মধ্যে থাকি। বিশেষ করে বহিরাগত কিছু গ্যাং এবং বখাটে যুবককে ঐদিন আমাদের এলাকায় সমবেত হতে দেখা যায় এবং তারা কোনো কোনো ক্ষেত্রে আমাদের যুবকদের হুমকিধামকি দিয়ে সমস্যা সৃষ্টি করার চেষ্টা করে। ৯) নোংরা, অরুচিকর নানান কিছু জনসম্মূখে এখানে ওখানে পড়ে থাকে, যা পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি সাধন করে। অনেকের ঘরের দরজার সামনে প্রশ্রাব পর্যন্ত করা হয়ে থাকে।
সভায় বক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবীর প্রতি শ্রদ্ধা দেখিয়ে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল বিগত তিন বছরের ন্যায় এবারো বাংলা টাউন ও উইভার্স ফিল্ড এলাকার পরিবর্তে স্থায়ীভাবে ভিক্টোরিয়া পার্কে রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করবে।

আরো সংবাদ

রামসুন্দর স্কুলে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন শুরু

মুন্সিরবাজার সমাজকল্যাণ সংস্থার ফ্রি সেলাই মেশিন পেলেন ১৮ নারী

বিশ্বনাথে এবিসি ইংলিশ ইনষ্টিটিউটের সেমিনার অনুষ্ঠিত

খাজাঞ্চীর প্রীতিগঞ্জ বাজারে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবিতে সভা

বিশ্বনাথ পৌর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন

বিশ্বনাথে হেক্সাস’র ফ্রি সেমিনার অনুষ্ঠিত

বিশ্বনাথে রামসুন্দর স্কুলের এসএসসি ৯১ ব্যাচের শুভেচ্ছা অনুষ্ঠান

বিশ্বনাথ লার্ণিং পয়েন্টে সেমিনার অনুষ্ঠিত

বিশ্বনাথ সরকারি ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সংবর্ধিত

ওসমানীনগর-বিশ্বনাথ উপজেলা ও পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী সম্মেলন

বিশ্বনাথে ব্র্যাকের ইউনিয়ন কর্মশালা

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দেওকলস ইউনিয়ন বিএনপির দোয়া মাহফিল

সর্বশেষ সংবাদ

রামসুন্দর স্কুলে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন শুরু

মুন্সিরবাজার সমাজকল্যাণ সংস্থার ফ্রি সেলাই মেশিন পেলেন ১৮ নারী

বিশ্বনাথে এবিসি ইংলিশ ইনষ্টিটিউটের সেমিনার অনুষ্ঠিত

খাজাঞ্চীর প্রীতিগঞ্জ বাজারে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবিতে সভা

বিশ্বনাথ পৌর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন

বিশ্বনাথে হেক্সাস’র ফ্রি সেমিনার অনুষ্ঠিত

বিশ্বনাথে রামসুন্দর স্কুলের এসএসসি ৯১ ব্যাচের শুভেচ্ছা অনুষ্ঠান

বিশ্বনাথ লার্ণিং পয়েন্টে সেমিনার অনুষ্ঠিত

বিশ্বনাথ সরকারি ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সংবর্ধিত

ওসমানীনগর-বিশ্বনাথ উপজেলা ও পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী সম্মেলন

বিশ্বনাথে ব্র্যাকের ইউনিয়ন কর্মশালা

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দেওকলস ইউনিয়ন বিএনপির দোয়া মাহফিল