বিশ্বনাথে সংবাদ সম্মেলনে যা বললেন তৌহিদী জনতার নেতারা

বিশ্বনাথ নিউজ ২৪ ডট কম :: ফেব্রুয়ারি - ২২ - ২০১৬ | ২: ৩০ অপরাহ্ণ | সংবাদটি 1376 বার পঠিত

123456নিজস্ব সংবাদদাতা:: বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সংবাদ সম্মেলন করেছেন কওমি উলামায়ে কেরামের নেতৃবৃন্দ। সোমবার বেলা ২টায় এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মাওলানা আব্দুর রহমান।
মিথ্যা তথ্যদিয়ে সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি উপজেলা বাগিছা বাজারস্থ আলবালাগ তাফসীরুল কোরআন পরিষদের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মাহফিলে প্রদত্ত বক্তব্যকে বিকৃত করে তথা কথিত সুন্নি নামধারীরা মাহফিলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির করার পায়তারা করে। এক পর্যায়ে তাফসীরের আয়োজকদের মধ্য থেকে ছালিক মিয়াকে চাপ সৃষ্টি করে তাহার দ্বারা মাহফিলের মাইকে ১৯ ফেব্রুয়ারি বাহাছের ঘোষনা দেওয়ানো হয়। তারপর তাফসীর আয়োজকদের পক্ষ থেকে বাহাছের নিরাপত্তার জন্য বিশ্বনাথ থানায় আবেদন করা হলে পুলিশ প্রশাসন বাহাছের অনুমিত পাওয়া যায়নি। এদিকে নাম ধারী সুন্নীদের পক্ষথেকে বাহাছের দাওয়াত সম্বলিত লিপলেট বিতরণ দেখে স্থানীয় ক্বওমী উলামাগণের পক্ষ হতে মাওলানা মুফতি রশীদ আহমদ ও মাওলানা আনহার উদ্দিনের আহবানে বাগিছা বাজার সংলগ্ন মাঠে ১৯ ফেব্রুয়ারী ২ বেলা টায় ‘ঈমান ও আক্বিদা বিনষ্টকারী এবং সমাজে চরম উত্তেজনা ও হানাহানি অপ্রপ্রচারের বিরুদ্ধে এক জরুরি প্রতিবাদ সভার আহবান করা হয় এবং মাইকিং সহ প্রচারনা চালানো হয়। ঐ প্রতিবাদ সভার পরামর্শের জন্য শুক্রবার স্থানীয় ময়নাগঞ্জ বাজারে ধর্মপ্রাণ এলাকাবাসী সমবেত হয়ে আলোচনা করতে থাকেন। ঐ দিন সকাল ১১ ঘটিকার সময় সিলেট-২ আসনের প্রাক্তন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী, বিশ্বনাথ আওয়ামীলীগের সভাপতি  পংকি খাঁন ও সাধারণ সম্পাদক বাবুল আক্তার, বিশ্বনাথ থানার ওসি  আব্দুল হাই সহ স্থানীয় ময়নাগঞ্জ বাজারে পরামর্শ সভায় উপস্থিত হয়ে কওমী উলামাদেরকে বলেন, ‘‘শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে আপনারা বাগিছা বাজারে যাবেন না। সেখানে কোন বাহাছ নাই। তাদেরকে শুধু মিলাদ মাহফিলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সেখানে কোন বিতর্কিত বিষয় আলোচনা হবে না। বাহাছ এভাবে হয় না, বাহাছের জন্য প্রশাসন থেকে পূর্ন নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হয়। এভাবে বাহাছ হলে শান্তি শৃঙ্খলা বিগ্নিত হবে।’’
এরই পরিপেক্ষিতে উপস্থিত উলামায়ে কেরাম সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দে ও প্রশাসনের আশ্বাসে সরল বিশ্বাসে কর্মসূচী স্থগিত ঘোষনা করি। কিন্ত পূর্ব ঘোষনা স্থগিত করা সত্ত্বেও যখন শোনাগেল তথাকথিত সুন্নী নামধারীরা মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তখন উপস্থিত বিক্ষোব্ধ জনতা আবারও ময়নাগঞ্জ থেকে বাগিছা বাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হলে পুলিশ তৌহিদী জনতাকে আটকে দেয়। পরবর্তীতে আমরা তৌহিদি জনতাকে শান্ত ও বাড়ীতে ফিরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করি এবং যার যার অবস্তানে ফিরে যান। পরে দিন আমরা দৈনিক সবুজ সিলেট ও দৈনিক ইনকিলাবে দেখতে পাই বিশ্বনাথে মিলাদ কিয়াম নিয়ে বাহাছ শেষ পর্যন্ত দেখা মিলেনি ওহাবীদের শিরোনামে একটি নিউজ। যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, মিথ্যা ও বানোয়াট। বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে বিশ্বনাথ তথা উলামায়ে কেরাম ও তৌহিদী জনতার বিরুদ্ধে ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র করেছে। কথিত সুন্নী নামধারীরা সমাজে বিশৃঙ্খলার জন্য তারা বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে এবং তাদের মিলাদ মাহফিলের ব্যানারে বাহাছের কোন উল্লেখও ছিলনা। আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধূরী ও প্রশাসন সহ সবাইকে অপমাণিত ও প্রতারিত করেছে। কথিত সুন্নী নামধারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।
লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, বাহাছের জন্য বিষয় বস্তু নির্ধারণ করে উভয়পক্ষের উলামাদের স্বাক্ষর সহ প্রশাসনের অনুমতি একান্ত প্রয়োজন। কিন্তু এখানেতো সুন্নী ও কৌওমি উলামায়ে কেরাম কোন স্বাক্ষরকৃত কাগজপত্রও ছিলনা। কিভাবে উহাকে বাহাছ নামে ও দোষ স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা শিরোনামে সংবাদ প্রচার করা হয়। কিন্তু কতিথ ভন্ড সুন্নী নামধারীরা মিথ্যা তথ্য দিয়ে গণমাধ্যমে কিভাবে সংবাদ প্রকাশ করে? কতিপয় নামধারী হলুদ সাংবাদিকরা মিথ্যা তথ্যদিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে সমাজের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। সঠিক তথ্য প্রেরণ করে সংবাদ প্রকাশের জন্য জাতির বিবেক সাংবাদিদের প্রতি সংবাদ সম্মেলনে আহ্বান করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে কওমী উলামায়ে কেরামের পক্ষ থেকে ঘোষনা করা হয়, শান্তি শৃঙ্খলা নিশ্চিত করে নিয়ম তান্ত্রিকভাবে বাহাছের ব্যবস্থা হলে যে কোন সময় বাহাছের জন্য এবং নামধারী সুন্নী বেদ-আতীদের মুখোশ উম্মোচন করে দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে কওমি আলেমরা প্রস্তুত রয়েছেন। তৌহিদী জনতার প্রতি বেদ্আতিদের অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য বিশ্বনাথ তথা সিলেটবাসীকে উদাত্ত জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মাওলানা রশিদ আহমদ, মাওলানা নূরুল ইসলাম, মাওলানা শহিদুল ইসলাম, মাওলানা নূরুল হক, মাওলানা কবির উদ্দিন, মাওলানা আবদুর রহমান, মাওলানা আনহার উদ্দিন, ফয়জুর রহমান, মাওলানা আতিকুর রহমান, মাওলানা শহিদুল ইসলাম, ছালিক মেম্বার, মাওলানা হাফিজ উদ্দিন, মাওলানা হাবিবুর রহমান, মাওলানা ফখরুল ইসলাম, মো. শানুর হক, আবদুর রহমান, আবু রাউফি চৌধুরী, মাওলানা হোসাইন আহমদ, মাওলানা মাহবুবুর রহমান, মুফতি জয়নাল আবেদিন, মাওলানা মনসুর আহমদ, মাওলানা মোশাহিদ, মাওলানা রাসেল আহমদ, এহিয়া প্রমুখ।

আরো সংবাদ

দশঘর ইউনিয়নে বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি ইউএসএ’র অর্থ বিতরণ

দেওকলস ইউনিয়নে ‘বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি ইউএসএ’র অর্থ বিতরণ

বিশ্বনাথে ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সভা

অলংকারী ইউনিয়নে বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি’র নগদ অর্থ বিতরণ

বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি’র নগদ অর্থ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন

বিশ্বনাথে হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার আসামী গ্রেফতার

বিশ্বনাথ এইড ইউকের চ্যারেটি ফুটবল টুর্নামেন্ট অংশ নিচ্ছে ১২টি দল

বিশ্বনাথে জামায়াত নেতা নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী গ্রেফতার

সিলেট বারের প্রবীণ আইনজীবী সুভাষ চন্দ্র ভৌমিকের পরলোকগমণ

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের রোগমুক্তি কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল

বিশ্বনাথে ডা. সৈয়দ আবুল লেইছ স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

বিশ্বনাথ থানার ওসি করোনায় আক্রান্ত

সর্বশেষ সংবাদ

দশঘর ইউনিয়নে বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি ইউএসএ’র অর্থ বিতরণ

দেওকলস ইউনিয়নে ‘বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি ইউএসএ’র অর্থ বিতরণ

বিশ্বনাথে ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সভা

অলংকারী ইউনিয়নে বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি’র নগদ অর্থ বিতরণ

বিশ্বনাথ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি’র নগদ অর্থ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন

বিশ্বনাথে হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার আসামী গ্রেফতার

বিশ্বনাথ এইড ইউকের চ্যারেটি ফুটবল টুর্নামেন্ট অংশ নিচ্ছে ১২টি দল

বিশ্বনাথে জামায়াত নেতা নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী গ্রেফতার

সিলেট বারের প্রবীণ আইনজীবী সুভাষ চন্দ্র ভৌমিকের পরলোকগমণ

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের রোগমুক্তি কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল

বিশ্বনাথে ডা. সৈয়দ আবুল লেইছ স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

বিশ্বনাথ থানার ওসি করোনায় আক্রান্ত