সুহৃদ স্বজনদের সহায়তায় আবারো শুরু হবে কাউসার চৌধুরীর আপোষহীন পথচলা

বিশ্বনাথ নিউজ ২৪ ডট কম :: ফেব্রুয়ারি - ২ - ২০১৬ | ২: ৫৯ অপরাহ্ণ | সংবাদটি 837 বার পঠিত

20160202122623নিউজ ডেস্ক :: বস্তুনিষ্টতা ও ন্যায়ের পক্ষের একটি সচল কলম থেমে যেতে দেয়া যায়না। যে কলম কাজ করে সমাজের কল্যাণে তাকে আমরা ফেরত চাই আমাদের মাঝে। চলমান সময়ে সিলেটে যে ক’জন মেধাবী সাংবাদিক এই অঞ্চলের সাংবাদিকতার অঙ্গণকে নিজেদের ক্ষুরধার লেখনীর মাধ্যমে সমৃদ্ধ করে চলেছেন, দৈনিক সিলেটের ডাক-এর সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার কাউসার চৌধুরী তাদের অন্যতম। কিন্তু, জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে আজ শয্যাশায়ী সেই প্রিয় মুখ, নন্দিত সাংবাদিক কাউসার চৌধুরী। তিনি যাতে সুস্থ হয়ে পুণরায় সগৌরবে কর্মক্ষেত্রে ফিরতে পারেন, সেজন্য আমরা অবশ্যই তার পাশে দাঁড়াবো। দৈনিক সিলেটের ডাক পরিবারের সকল সদস্যসহ সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর সুহৃদ স্বজনদের সহায়তায় আবারো কাউসার চৌধুরীর আপোষহীন পথচলা শুরু হবে বলে আমাদের বিশ্বাস।
লিভার ও কিডনীর জটিল রোগে আক্রান্ত সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীকে দেখতে গিয়ে এমন অভিব্যক্তি জানিয়েছেন দৈনিক সিলেটের ডাক-এর সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি, স্বনামখ্যাত দানবীর ড. সৈয়দ রাগীব আলী।
গত প্রায় বছর তিনেক ধরে অসুস্থ অবস্থায় রয়েছেন তরুণ সাংবাদিক কাউসার চৌধুরী। প্রাথমিকভাবে তার রক্তে হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। বিশিষ্ট কিডনী বিশেষজ্ঞ ডা. নাজমুস সাকিবের তত্বাবধানে সিলেটে কয়েক মাস চলে তার চিকিৎসা। ঢাকায় গিয়ে প্রফেসর হারুনুর রশিদসহ বিশিষ্ট ডাক্তারদের দেখানো হয়। কিন্তু, এরপর ধরা পড়ে হেপাইটিস-বি ভাইরাসের কারণে তার কিডনী ও লিভার দুটোই ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। ডাক্তাররা তাকে বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করানোর পরামর্শ দেন। নিজের ও নিজের স্ত্রীর সকল সঞ্চয় খরচ করে ভারতের ভেলুরে অবস্থিত ক্রিশ্চিয়ান মিশনারী হাসপাতাল (সিএমসি)-তে যান সাংবাদিক কাউসার চৌধুরী। ২০১৪ সালের জুলাই মাসে প্রায় এক মাস ঐ হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা নেন তিনি। সেখানকার ডাক্তাররা দীর্ঘ চিকিৎসার পর কিছু ব্যবস্থাপত্র দিয়ে তাকে ছাড়পত্র দেন। দেশে ফিরে গত প্রায় ৩ বছর ধরেই সে অনুযায়ী ঔষদপত্র খেয়ে মোটামোটি সুস্থ ছিলেন কাউসার। কিন্তু, মাসখানিক আগে আকষ্মিকভাবে তার শারীরিক অবস্থার অবনিত হয়। জরুরী ভিত্তিতে ডাক্তররা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখতে পান সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর রক্তে ‘টক্সিক উপাদান’ বেড়ে গেছে আশঙ্কাজনকভাবে। এ অবস্থায় ডাক্তাররা তাকে জরুরী ভিত্তিতে ডায়ালাইসাইসিসের পরামর্শ দেন। সে অনুযায়ী নগরীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে গত দু’সপ্তাহ ধরে ডায়ালাইসিস নিচ্ছেন কাউসার চৌধুরী।
এই আকষ্মিক অসুস্থতায় চরমভাবে মুষড়ে পড়েছেন প্রাণোচ্ছল টগবগে তরুন কাউসার চৌধুরী। একই ভাবে হতাশায় ও বিষাদে নিমজ্জিত তার পরিবার। কারণ, ডাক্তাররা জানিয়েছেন কাউসারের লিভার ও কিডনী দুটোই কাজ করছেনা। হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের সংক্রমণে লিভার ও কিডনী দুটোই বিকল হওয়ার উপক্রম। এ অবস্থায় তার চিকিৎসার জন্য যে বিশাল অংকের অর্থের প্রয়োজন সে চিন্তায় অস্থির সবাই।
ডাক্তাররা জানিয়েছেন, বেঁচে থাকতে হলে সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর লিভার এবং কিডনী- দুটোই প্রতিস্থাপন করতে হবে। স্বেচ্ছায় ডোনার পাওয়া গেলেও জটিল এ চিকিৎসা করাতে ধাপে ধাপে প্রয়োজন প্রায় কোটি টাকা। নিতান্তই দরিদ্র পরিবারের সন্তান কাউসারের একার পক্ষে সে টাকা জোগাড় করা দুরূহ। আর তাই এ মুহূর্তে কাউসার চৌধুরীর জন্য দোয়া-আশীর্বাদের পাশাপাশি প্রয়োজন সবার সহযোগিতা।
এ পরিস্থিতে প্রথমেই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে এসেছেন দৈনিক সিলেটের ডাক পরিবারের অভিভাবক দানবীর ড. সৈয়দ রাগীব আলী।
গতকাল দুপুরে দানবীর ড. রাগীব আলী সাংবদিক কাউসার চৌধুরীকে দেখতে তার বাসায় যান। তিনি তার শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। এ সময় তিনি কাউসার চৌধুরীকে দৃঢ় মনোবল নিয়ে চলমান পরিস্থিতি মোকাবেলার উপদেশ দিয়ে বলেন, দৈনিক সিলেটের ডাক শুধুমাত্র একটি পত্রিকা নয়। এই পত্রিকার কর্মীরা সবাই একটি পরিবারের মত। আমিও সেই পরিবারের গর্বিত সদস্য। আমাদের পরিবারের একজন সদস্য চিকিৎসার অভাবে অবহেলায় পড়ে থাকবে, তা আমরা হতে দেবোনা। আমরা সবাই তার পাশে দাঁড়াবো। প্রয়োজনে আমাদের সুহৃদদেরও সহযোগিতা চাইবো। আমাদের বিশ্বাস, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সাংবাদিক কাউসার চৌধুরী আবারো পত্রিকার টেবিলে নিজ কমÿেত্রে সুস্থ শরীরে ফিরে আসবেন।
এ সময় দানবীর ড. সৈয়দ রাগীব আলী সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর চিকিৎসার জন্য প্রাথমিকভাবে এক লাখ টাকার একটি চেক তুলে দেন এবং ভবিষ্যতে আরো আর্থিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
এ সময় অন্যান্যের মাঝে দৈনিক সিলেটের ডাক-এর নির্বাহী সম্পাদক আব্দুল হামিদ মানিক, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক দেওয়ান তৌফিক মজিদ লায়েক, সিলেট জেলা বারের এডিশনাল পিপি এডভোকেট শামসুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, দিরাই উপজেলার তাড়লের বাসিন্দা কাউসার চৌধুরী সুনামগঞ্জে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠনক সুজাত চৌধুরীর ভাতিজা। ২০০৪ সাল থেকে তিনি দৈনিক সিলেটের ডাক-এর সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত আছেন।

আরো সংবাদ

বিশ্বনাথে শিল্পকলা একাডেমি বাস্তবায়নের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

‘পাঁচ পীরের মোকাম’র ‘রহস্যময়’ হিজল

বিশ্বনাথ উপজেলা আ’লীগের কার্যকরী কমিটির সভা

বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভা

ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ থেকে মোটরসাইকেল চুরি

বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের উপর হামলার অভিযোগে মামলা দায়ের

বিশ্বনাথে ইউকে’র জিপি সিস্টেমে চিকিৎসা সেবা চালু!

বিশ্বনাথে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক

বিশ্বনাথে ভূমি সেবা সপ্তাহে সেবা ক্যাম্প চালু

বিশ্বনাথে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী-২০২১ সম্পন্ন

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত, থানায় ছাত্রলীগ কর্মীর অভিযোগ

ট্রাক পিকআপ কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন বিশ্বনাথ উপ-কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন

সর্বশেষ সংবাদ

বিশ্বনাথে শিল্পকলা একাডেমি বাস্তবায়নের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

‘পাঁচ পীরের মোকাম’র ‘রহস্যময়’ হিজল

বিশ্বনাথ উপজেলা আ’লীগের কার্যকরী কমিটির সভা

বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভা

ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ থেকে মোটরসাইকেল চুরি

বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের উপর হামলার অভিযোগে মামলা দায়ের

বিশ্বনাথে ইউকে’র জিপি সিস্টেমে চিকিৎসা সেবা চালু!

বিশ্বনাথে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক

বিশ্বনাথে ভূমি সেবা সপ্তাহে সেবা ক্যাম্প চালু

বিশ্বনাথে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী-২০২১ সম্পন্ন

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত, থানায় ছাত্রলীগ কর্মীর অভিযোগ

ট্রাক পিকআপ কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন বিশ্বনাথ উপ-কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন