মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথে জঙ্গিবাদ সচেতনতায় দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথ থেকে স্কুলছাত্র নিখোঁজ  » «   আ’লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিশ্বনাথে র‌্যালী-সভা  » «   বিশ্বনাথের পশ্চিম ধলিপাড়া গ্রামের পানি নিষ্কাশনে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবিতে স্মারকলিপি  » «   কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ২ : আহত ২৫০  » «   বিশ্বনাথের সড়কগুলো সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধন  » «   বিশ্বনাথে হেক্সাস’র সার্টিফিকেট বিতরণ  » «   বিশ্বনাথে প্রেগনেন্সি টেস্টে ভূল রিপোর্ট : অল্পের জন্য রক্ষা পেল গর্ভের সন্তান  » «   বিশ্বনাথে ভ্রাম্যমান অভিযানে সাড়ে ৯ হাজার জরিমানা আদায়  » «   বিশ্বনাথে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে রাস্তার ঝোপঝার পরিস্কার  » «   বিশ্বনাথে উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নুনু মিয়া  » «   বিশ্বনাথে আহমদ আলী স্মরণে উপজেলা আ’লীগের শোকসভা  » «   কৃষকরাই বাংলাদেশের প্রাণের বন্ধু :শফিক চৌধুরী  » «   বিশ্বনাথে প্রবাসীর বিরুদ্ধে কোটি টাকা আত্মসাতের পাল্টা অভিযোগ : আদালতে মামলা  » «   সংবাদ প্রকাশের একদিন পরই বিশ্বনাথে সড়কের পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ  » «  

বিশ্বনাথে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিকের উপর হামলা

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: যুক্তরাজ্য প্রবাসী শেখ মহব্বত আলীর দেওয়া প্রাণনাশের হুমকিতে প্রবাসীকে অভিযুক্ত করে আদালতে মামলা (মামলা নং ১১৭/২০১৯ ইংরেজী) করায় সিলেটের বিশ্বনাথে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক আলীর উপর হামলা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলায় গুরুত্ব আহত হয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক ও তার সঙ্গিয় ছাত্রলীগ নেতা গুরুত্ব আহত হয়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহন করেছেন।

এদিকে হামলার ঘটনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক আলী বাদী হয়ে সিলেটের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত নং ০৩-এ মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং সিআর ১৪৯/২০১৯ ইংরেজী। মামলার অভিযুক্তরা হলেন- বিশ্বনাথ উপজেলার কামালপুর গ্রামের মৃত আনজব আলীর পুত্র ছবর আলী (৩৫), উত্তর দশপাইকা গ্রামের মৃত রাহাত উল্লার পুত্র শেখ মহব্বত আলী (৪৮), বালাগঞ্জ উপজেলার শিওরখাল গ্রামের রফিক আলীর পুত্র আনহার উজা (৪৫), বিশ্বনাথ উপজেলার দক্ষিণ দশপাইকা গ্রামের নছিব উল্লার পুত্র ওহাব আলী (৪০), উত্তর দশপাইকা গ্রামের মৃত খলিল মিয়ার পুত্র শফিক আহমদ পিয়ার (৩৫)।
মামলার লিখিত অভিযোগে বাদী উল্লেখ করেছেন, অভিযুক্তদের সাথে বাদীর একাধিক মামলা চলমান থাকায় অভিযুক্তরা বাদী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক আলীর ক্ষতি সাধনের জন্য পূর্ব বিরুধের জের ধরে গত ২২মে রাত সাড়ে ৮টার দিকে জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী উপজেলার মৌলভীরগাঁও গ্রামস্থ ফুফুর বাড়িতে (মনোহর আলীর বাড়ি) রমজানের ইফতারী দিয়ে গাড়ী যোগে নিজ বাড়িতে ফেরার পথিমধ্যে রফিক ও তার সঙ্গির উপর দা, কিরিছ, ডেগার, রডসহ বিভিন্ন রকমের অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হামলা করেন অভিযুক্তরা। অভিযুক্তদের টর্চ লাইটের ও বাদীর ব্যবহৃত গাড়ীর হেড লাইটের আলোতে অভিযুক্তদের চিনতে পারেন বাদী রফিক ও তার সঙ্গিয় শামীমসহ স্বাক্ষীরা। হামলার সময় মামলার ২নং অভিযুক্ত প্রবাসী শেখ মহব্বত আলী তার হাতে থাকা ডেগার দিয়ে বাদী রফিক আলীকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছেদ মারিলে বাদী মারাতœক জখন হন। ৪নং অভিযুক্ত ওহাব আলী ধারালো দা দিয়ে বাদীর সঙ্গিয় শামীম আহমদকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছেদ মারিলে তা ডান হাতের কনুইয়ের নীচে পড়িয়া মারত্মক জখম হয়। এসময় ১ম অভিযুক্ত বাদীর পকেটে থাকা প্রায় দেড় হাজার টাকা জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়। ৫নং অভিযুক্ত শফিক আহমদ পিয়ার হুমকি দিয়ে বলে তার চাচাত ভাই শেখ মহব্বত আলীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা উঠাইয়া না নিলে বাদী রফিক আলীকে দুনিয়া থেকে চিরতরে বিদায় করে দেবে। এরপর অভিযুক্তরা তাদেরকে আহত করে ঘটনাস্থলে ফেলে রেখে নিজেদের গন্তব্যস্থলে চলে গেলে স্থানীয় জনতা আহত বাদী রফিক আলী ও শামীম আহমদকে চিকিৎসার জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যান।
এব্যাপারে অভিযুক্ত ওহাব আলী বলে, আমি কোন হামলার সাথে জড়িত নই বা হামলা সম্পর্কে কিছু জানিও না। এছাড়া অন্যান্য অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের মোবাইল বন্ধ পাওয়া গেছে।
স্থানীয় ও পূর্বের মামলার লিখিত অভিযোগের সূত্রে জানা গেছে, ‘১০ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ ২ লাখ টাকা’ চুরি করার অভিযোগে সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার শিওরখাল গ্রামের আনহার উজা (৪৫), বিশ্বনাথ উপজেলার শাহজিরগাঁও গ্রামের আরফান উল্লাহ ওরফে গৌছ আলীর স্ত্রী হাওয়ারুন নেছা (৪০), কামালপুর গ্রামের মৃত আনজব আলীর পুত্র ছবর আলী (৩৬) ও সুনামগঞ্জে ছাতক উপজেলার বুরাইয়া গ্রামের মৃত ছাদ মিয়ার স্ত্রী জয়দুন বিবি (৪২)’কে অভিযুক্ত করে ২০১৯ সালের ২৫ এপ্রিল সিলেটের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত নং ০৩-এ একটি মামলা (সিআর ১২২/২০১৯ ইংরেজী) দায়ের করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক আলী। আদালত বিশ্বনাথ থানাকে মামলাটি তদন্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে দীর্ঘ তদন্ত শেষে গত ১৭ মে বিশ্বনাথ থানার এসআই মিজানুর রহমান আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করেন। তদন্ত প্রতিবেদনে ওই ৪ (চার) অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বাদী করা অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার কথা উল্লেখ করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মিজান।
এদিকে রফিকের দায়ের করা সিআর ১২২/২০১৯ইং মামলার ৪নং অভিযুক্ত জয়দুন বিবি ও ২নং অভিযুক্ত হাওয়ারুন নেছা সম্পর্কে প্রবাসী শেখ মহব্বত আলীর শাশুড়ী ও জেটালী হওয়ায় মামলা দায়েরের সাথে সাথেই প্রবাসী দেশে চলে আসেন। দেশে আসার পর শেখ মহব্বত আলী বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে পুলিশ যাতে তদন্ত প্রতিবেদন ওই চার অভিযুক্তর পক্ষ দেয় সেই অবৈধ অপচেষ্টা। এখানে ব্যর্থ হয়ে একাধিকবার বিষয়টি আপোষ-মিমাংশায় শেষ করার প্রস্তাব দিয়েও ব্যর্থ হন। দু’দিকেই ব্যর্থ হয়ে ক্ষিপ্ত থাকা রফিক আলীর উপর আরোও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন শেখ মহব্বত আলী ও ছবর আলী গংরা। এ থেকে উভয়ের মধ্যে শত্রুতা সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে গত ১৮ মে রাত আনুমানিক ৮টায় বিশ্বনাথ নতুন বাজার শাহ ম্যানশনের সামনে বাদীকে একা পেয়ে শেখ মহব্বত আলী তাকে (রফিক) ‘প্রাণ বাঁচতে চাইলে মামলা আপোষ কর নতুবা মামলা করার সাধ মিটাইয়া দিব’ প্রাণে মারার হুমকি দেন। হুমকি প্রদানের ঘটনায় উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হলে উপস্থিত জনসাধারণ তাদেরকে শান্ত করার চেষ্ঠা করেন। কিন্তু এসময় শেখ মহব্বত আলী আবারও প্রকাশ্যে ‘ভালামন্দ খাইলা, অচিরেই তোরে লাশ করব’ বলে হুমকি দিয়েছেন বলে দাবী করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রফিক আলী গত ২০মে নিজের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সিলেটের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১১৭/২০১৯ ইংরেজী।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ