শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথে সাংবাদিকদের সাথে অশোভন আচরণের জন্য ইউএনও’র দুঃখ প্রকাশ  » «   বিশ্বনাথে প্রবাসীর কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় সাবেক চেয়ারম‌্যান আবারক গ্রেপ্তার  » «   বিশ্বনাথে নরশিংপুর সাজ্জাদুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ‌্যালয়ে সাধারণ সভা  » «   বালাগঞ্জে শিলাবৃষ্টিতে বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি  » «   বিশ্বনাথে সানশাইন মডেল একাডেমিতে পিঠা উৎসব ও প্রবাসীদের সংবর্ধনা  » «   বিশ্বনাথে নিরব ভাই ভাই স্পোটিং ক্লাবের ফুটবল টুর্নামেন্ট সম্পন্ন  » «   বিশ্বনাথ আ’লীগের সাংগঠনিক সুমনের পিতার দাফন সম্পন্ন  » «   সেবার অঙ্গীকার নিয়ে ৫ম বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের যাত্রা শুরু  » «   বিশ্বনাথ উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমনের পিতার ইন্তেকাল  » «   বিশ্বনাথে গুণীজন সংবর্ধনা ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ  » «   লন্ডনী কন্যা সেজে শিউলির প্রতারণা  » «   মুজিবনগর দিবসে বিশ্বনাথে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভা  » «   অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে বিশ্বনাথের সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ  » «   বিশ্বনাথ প্রেসক্লাব থেকে অসিত রঞ্জন দেব বহিস্কার  » «   বিশ্বনাথে কালবৈশাখী ঝড়ে লন্ডভন্ড বাড়িঘর : ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি  » «  

বিশ্বনাথে দুলাভাইয়ের ধর্ষণে শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা : লম্পট গ্রেফতার

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সিলেটের বিশ্বনাথে ১৪ বছর বয়সী নিজ শ্যালিকাকে ধর্ষণ করে অন্তঃসত্ত্বা করার অভিযোগে লম্পট দুলাভাইকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। পাষবিক নির্যাতনের শিকার হওয়ার ওই কিশোরীর মা বাদি হয়ে বিশ্বনাথ থানায় অভিযোগ দায়ের করলে রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে ভিকটিমের দুলাভাই অভিযুক্ত রাসেল মিয়া (২৫) কে আটক করে থানা পুলিশ। সে উপজেলার পুরান সৎপুর গ্রামের ইছদ্দর আলীর ছেলে। তাকে আটকের পর রাতেই থানায় মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। মামলা নং- ৫।
জানা গেছে, প্রায় ২বছর পূর্বে নিজ গ্রামের বাসিন্দা জনৈকা রহিমা বেগমকে বিয়ে করে অটোরিক্শা (টমটম) চালক রাসেল মিয়া। বিয়ের প্রায় বছর খানেক পর তাদের ঘরে জন্মগ্রহন করে একটি কন্যা সন্তান। একই গ্রামে শশুর বাড়ি হওয়ার সুবাদে প্রতিদিন সেখানে যাতায়াত করে রাসেল। তার হতদরিদ্র শশুর প্রতিবন্ধী থাকায় শাশুড়ি প্রতিদিন গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে দিনমজুরের কাজ করেন। এই সুযোগে রাসেল তার নিজ শ্যালিকা (১৪ বছর বয়সী কিশোরী) কে জোরপূর্বক ধর্ষণ করতে থাকে। একপর্যায়ে ওই কিশোরী প্রায় ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে ঘটনাটি লোকমুখে এলাকার সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি স্থানীয় মাতব্বরা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করলে তা জানতে পারে থানা পুলিশ। এরপর রোববার রাতে অভিযুক্ত রাসেল মিয়া ও তার শ্যালিকা (ভিকটিম) কে থানায় ডেকে আনে পুুলিশ। এসময় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ভিকটিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করলে ও ভিকটিম কিশোরীর মা থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্ত রাসেল মিয়াকে আটক করে পুলিশ। এরপর রোববার রাতেই নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০৩ এর সংশোধনী ৯ (ক) ধারায় থানায় মামলা রেকর্ড করা হয়।
মামলা দায়ের ও অভিযুক্ত রাসেল মিয়াকে আটকের সত্যতা শিকার করেছেন বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ