রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
আ ন ম শফিকুল হকের শয্যাপাশে সাবেক অর্থমন্ত্রী মুহিত  » «   বিশ্বনাথের ব্যারিষ্টার নাজির লন্ডনে নিউহ্যামের ডেপুটি স্পিকার হিসেবে পুনঃনির্বাচিত  » «   বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল আগামীকাল সোমবার  » «   বিশ্বনাথের নুরুল যুক্তরাজ্যে ৩য় বারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত  » «   শিরোপা জেতে ক্রিকেটে বাংলাদেশের নয়া ইতিহাস  » «   বিশ্বনাথে গ্রাম ডাক্তার ঐক্য কল্যাণ সোসাইটির ইফতার মাহফিল  » «   বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপির দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত : ইফতার মাহফিল ২৫ রমজান  » «   বিশ্বনাথে মানব পাচারকারী রফিক চক্রের বিরুদ্ধে মামলা : স্বপরিবারে আত্মগোপনে   » «   বিশ্বনাথ-রশিদপুর প্রশস্থকরণ কাজ পরিদর্শনে নুনু মিয়া  » «   বিশ্বনাথ এডুকেশন ট্রাস্টের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটিকে টাকা উত্তোলনের সুযোগ দিলেন কৃষি ব্যাংক ম্যানেজার  » «   বিশ্বনাথের কিশোর তাজ উদ্দিন হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি  » «   ইতালি যাওয়ার পথে বিশ্বনাথের আরো এক যুবক নিখোঁজ  » «   বিশ্বনাথ সমিতি অব নিউজার্সী ইউএসএ’র কমিটি গঠন  » «   বিশ্বনাথে বিআরটি’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  » «   ইতালি যাওয়ার পথে বিশ্বনাথের দুই যুবক নিখোঁজ  » «  

বিশ্বনাথে বাসিয়া নদীর চরে নির্মাণাধীন অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা সদরের পুরান বাজার এলাকায় বাসিয়া নদীর চর দখল করে নির্মানাধিন অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেন করেছে প্রশাসন। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাতেমা তুজ জোহরার নেতৃত্বে এই স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

জানা গেছে- উপজেলা সদরের পুরান বাজার (খেয়া ঘাট) পার্শ্বে বাসিয়া নদীর চর দখল করে উপজেলার জাহারগাঁও গ্রামের তশিল খানের পুত্র ইশতিয়াক আহমদ খান ও মোস্তাক আহমদ খান ৩তলা ফাউন্ডেশন দিয়ে দালান ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেন। এরই ধারাবাহিকতায় পূর্বের টিন সেড ঘরের ভিতরেই কৌশলে নির্মাণ করা হয় পাকা পিলার। বিষয়টি জানতে পেরে নির্মাণ কাজের শুরুতেই কাজ বন্ধ রাখতে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ হতে নির্দেশ প্রদান করা হলেও তা অমান্য করে রাতের আধারেও নির্মাণ কাজ চলতে থাকে। কিন্ত উক্ত স্থানের দখলদার তশিল খান সহ উপজেলা সদরের বাসিয়া নদীর তীরের অবৈধ ১৮৬ জন দখলদারের উপর উচ্ছেদ মামলা চলাকালিন অবস্থায় নতুন করে দালান নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। ফলে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাতেমা তুজ জোহরার নেতৃত্বে এই স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্বনাথ থানার এসআই লিটন রায়, আখতারুজ্জামান রিগ্যান, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা নির্মল পাল, উপজেলা সার্ভেয়ার শেফালী আক্তার, উপজেলা ভূমি অফিসের অফিস সহকারী নুরুল ইসলাম, শিমুল চন্দ্র, ফয়ছল ইসলাম প্রমুখ।

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাতেমা তুজ জোহরা বলেন- উচ্ছেদ মামলা চলাকালীন অবস্থায় নতুন করে ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ