মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথে ‘ভূয়া নাগরিক সনদে’ নিয়োগকৃত শিক্ষকদের বাতিলের দাবীতে মন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান  » «   বিশ্বনাথে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ইউএনও  » «   বিশ্বনাথে শিশু কন‌্যাকে অপহরণকালে জনতার হাতে আটক ১  » «   বিশ্বনাথে অজ্ঞাতনামা নারী হত্যা মামলা পুনঃতদন্তের জন্য ওসি’কে আদালতের নির্দেশ  » «   বিশ্বনাথে রামপাশা ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন  » «   স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য নির্বাচিত যমজ দুই ভাই মাফী ও শাফী  » «   আলোকিত দেশ গঠনে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই – প্রতিমন্ত্রী মান্নান  » «   বিশ্বনাথে ট্রাক ড্রাইভারকে মারধর করার অভিযোগ : এমপির বিরুদ্ধে মিছিল-পাল্টা মিছিল  » «   বিশ্বনাথে প্রবাসীর উদ্যোগে হুইল চেয়ার ও সেফটি জ্যাকেট বিতরণ  » «   বিশ্বনাথে বিএনপি নেতা আব্দুল হাই গ্রেফতার  » «   বিশ্বনাথে পূজা মন্ডপে এমপি ইয়াহইয়া চৌধুরী সংবর্ধিত ও বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন  » «   পিস্তল’সহ বিশ্বনাথের যুবক গ্রেফতার  » «   বিশ্বনাথ ডেফোডিল এসোসিয়েশনের যুগপূর্তি অনুষ্ঠান সম্পন্ন  » «   শান্তি-সম্প্রীতি বজায় রাখতে আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর হস্তক্ষেপ কামনা করলেন মিরগাঁও গ্রামবাসী  » «   বিশ্বনাথের রামপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন  » «  

সিলেটে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অপরাধে চার আসামির মৃত্যুদণ্ড

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সুলতানা বেগম নামের ১০ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অপরাধে চার আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম  ও শিশু আদালতের বিচারক এ এম জুলফিকার হায়াত আজ রবিবার দুপুরে এই রায় ঘোষণা করেন। আসামিদের এক লাখ টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।

ধর্ষণের পর হত্যা করে মরদেহ গুমের অপরাধে আসামি প্রত্যেককে সাত বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ ও দশ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কানাইঘাটের বড়খেওর গ্রামের ইমাম উদ্দিনের ছেলে আবুল উদ্দিন (২৩) সুরুজ আলীর ছেলে সাদেক উদ্দিন (২৮), মৃত লিয়াকত আলীর ছেলে রাসেল মিয়া (২২) এবং এরালিগুল গ্রামের নিমার আলী ওরফে মিজান আলীর ছেলে বাবুল আহমদ ওরফে রুহুল (৩২)।

আসামিদের মধ্যে বাবুল আহমদ পলাতক রয়েছেন।

নিহত সুলতানা কানাইঘাটের এরালিগুল গ্রামের তেরাব আলীর মেয়ে। কানাইঘাটের ছোটফৌজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ত সে।

২০১৬ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর সুলতানাকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়। পরে তার মরদেহ গুম করতে মাটিচাপা দেয় দণ্ডিত আসামিরা।

আদালতের এপিপি এডভোকেট ফখরুল ইসলাম জানান, ২০১৬ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর স্কুল ছুটির পর সুলতানা বেগম তার সহপাঠি ফারজানার সাথে তার গ্রাম বড়খেওরের বাড়িতে যায়। ফারজানার ভাই আবুল উদ্দিনসহ অন্য আসামিরা বাড়ির পাশের একটি টিলায় কাজ করছিল। আবুল তার বোন ফারজানাকে খাবার পানি দিতে বলে। তখন ফারজানা না গিয়ে সুলতানাকে দিয়ে টিলার ওপরে থাকা আবুলদের জন্য পানি পাঠায়। ওই সময় আবুলসহ অন্যান্য আসামিরা সুলতানাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। জানাজানি হওয়ার ভয়ে তারা সুলতানাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ মাটিচাপা দেয়।

তিনি আরও জানান, ওইদিন সুলতানা বাড়িতে না ফেরায় তার বাবা কানাইঘাট থানায় জিডি করেন। পরদিন ওই টিলা থেকে তার মাটিচাপা দেয়া লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সুলতানার ভাই একলিম উদ্দিন বাদী হয়ে চার আসামির বিরুদ্ধে ধর্ষণ, হত্যা ও লাশ গুমের অভিযোগে মামলা করেন। তদন্ত শেষে চারজনকেই অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। দীর্ঘ শুনানি শেষে সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ