বিশ্বনাথে হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ৪ জনের কারাদন্ড
বুধবার, ১৫ আগষ্ট, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথে রামপাশা-বৈরাগী-সিংগেরকাছ বাজার সড়কের বেহাল দশা : জনদূর্ভোগ  » «   বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবসে পুষ্পস্তবক অর্পন ও র‌্যালী  » «   শোকাবহ ১৫ আগস্ট আজ  » «   বিশ্বনাথে রাস্তায় গেইট নির্মাণ নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ  » «   বিশ্বনাথ ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণে প্রশাসনিক অনুমোদন  » «   শিক্ষা প্রতিষ্টানে মাদক বিরোধী কমিটির আলোচনা সভা  » «   বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভা  » «   বিশ্বনাথে ব্রাক এর ‘উপজেলা মাইগ্রেশন ফোরাম মিটিং’ অনুষ্ঠিত  » «   দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে আ’লীগের বিকল্প নেই -শফিক চৌধুরী  » «   পবিত্র হজ্ব পালন করতে স্বপরিবারে সৌদি আরব গেলেন মিছবাহ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে উদ্ধারকৃত ২২টি গরু সনাক্ত করতে থানায় জনতার ভিড়  » «   সিংগেরকাছ পাবলিক বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে নবীণ বরণ  » «   বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবস পালনের লক্ষে যুবলীগের প্রস্তুতি সভা  » «   বিশ্বনাথে স্বামীর হাতুড়ির আঘাতে স্ত্রী নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের  » «   বিশ্বনাথে ‘পরিচ্ছন্ন ও সবুজ জনপদ’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক  » «  

বিশ্বনাথে হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ৪ জনের কারাদন্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের মৌলভীরগাঁও গ্রামে প্রতিপক্ষের উপর হামলার অভিযোগে দায়েরকৃত (বিশ্বনাথ সিআর-২১১/১৫) মামলায় ৪ জনকে কারাদন্ড প্রদান করেছেন আদালত। দন্ডিতরা হলেন- মৌলভীরগাঁও গ্রামের সমুজ আলীর পুত্র হরুপ আলী (৩৮), নুর আলী (২৮), রুবেল উরফে আরজান আলী (২৫) ও সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার গোপালপুর গ্রামের রইছ উরফে সামত আলীর পুত্র খালেদ মিয়া (২৩)। মামলার অপর আসামী মৌলভীরগাঁও গ্রামের মৃত শব্দর আলীর পুত্র সমুজ আলী (৫৮) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। গত ৪ জুলাই সিলেটের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কাউছার আহমদ এই রায় প্রদান করেন।
বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন বাদী পক্ষের আইনজীবী মোঃ আতিকুর রহমান বিশ্বনাথ নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম-কে জানান, পারিবারিক বিষয় ও জায়গা জমি নিয়ে অভিযুক্তদের সাথে মৌলভীরগাঁও গ্রামের আছকর আলীর দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে ২০১৫ সালের ৩নভেম্বর রাত ৭টায় উভয় পক্ষের লোকজনদের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে অভিযুক্তরা প্রতিপক্ষের আছকর আলীর পুত্র জাহির আলী উপর হামলা করেন। এতে জহির আলী গুরুতর আহত হলে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটনায় আছকর আলী বাদি হয়ে ২০১৫ সালের ৪ডিসেম্বর প্রতিপক্ষের ৫জনকে আসামী করে বিশ্বনাথ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-৫)। মামলার তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ১২মে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশীট) দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বিশ্বনাথ থানার এসআই কল্লোল গোস্বামী। মামলার দীর্ঘ বিচার কার্য শেষে গত ৪ জুলাই রায় প্রদান করেন সিলেট চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত। রায়ে অভিযুক্ত হরুপ আলীকে তিন বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ১০হাজার টাকা অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরো ৬মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড, অভিযুক্ত নুর আলীকে ৬মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫শত টাকা অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরো ১মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং অভিযুক্ত রুবেল উরফে আরজান আলী ও খালেদ মিয়াকে ৪বছর বিনাশ্রম কারাদন্ড ও প্রত্যেককে ১০হাজার টাকা অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরো ৬মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়। মামলার অপর অভিযুক্ত সমুজ আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি প্রদান করেন আদালত। রায়ে প্রদানের পর দন্ডিত ৪আসামীকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ