বিশ্বনাথে দু'পক্ষের সংঘর্ষে মহিলা ও শিশু'সহ আহত ১০
বৃহস্পতিবার, ১৬ আগষ্ট, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
যথাযোগ্য মর্যাদায় বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবস পালিত  » «   যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত  » «   লালাবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় বিশ্বনাথের পিকআপ চালক ও হেলপার নিহত  » «   ঘাতক নূরের রায় কার্যকর না হওয়ায় আমরা সিলেটবাসী লজ্জিত -শফিক চৌধুরী  » «   বিশ্বনাথে রামপাশা-বৈরাগী-সিংগেরকাছ বাজার সড়কের বেহাল দশা : জনদূর্ভোগ  » «   বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবসে পুষ্পস্তবক অর্পন ও র‌্যালী  » «   শোকাবহ ১৫ আগস্ট আজ  » «   বিশ্বনাথে রাস্তায় গেইট নির্মাণ নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ  » «   বিশ্বনাথ ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণে প্রশাসনিক অনুমোদন  » «   শিক্ষা প্রতিষ্টানে মাদক বিরোধী কমিটির আলোচনা সভা  » «   বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভা  » «   বিশ্বনাথে ব্রাক এর ‘উপজেলা মাইগ্রেশন ফোরাম মিটিং’ অনুষ্ঠিত  » «   দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে আ’লীগের বিকল্প নেই -শফিক চৌধুরী  » «   পবিত্র হজ্ব পালন করতে স্বপরিবারে সৌদি আরব গেলেন মিছবাহ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে উদ্ধারকৃত ২২টি গরু সনাক্ত করতে থানায় জনতার ভিড়  » «  

বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলা ও শিশু’সহ আহত ১০

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সিলেটের বিশ্বনাথে রাস্তায় গাড়ি নিয়ে চলাচলকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার (১৮মে) বিকেলে উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের কাদিপুর (চক রামপ্রশাদ) গ্রামের ইন্তাজ আলী ও মস্তাব আলী পক্ষের লোকজনের মধ্যে এঘটনাটি ঘটে। এক পক্ষের আহতরা হলেন- চক কাদিপুর গ্রামের মৃত ইছাক আলীর পুত্র ইন্তাজ আলী (৫৫), তার স্ত্রী আসিয়ারা বেগম (৪৫), পুত্র লুৎফুর রহমান লিপন (২৬), সুজন মিয়া (২২), শরিফ আলী (১৯), একই গ্রামের মৃত চমক আলীর পুত্র মকবুল আলী (২৪), সিতাব আলীর দেড় বছর বয়সী শিশু তাওহিদা। অপর পক্ষের আহতরা হলেন- মৃত আব্দুল কাদিরের পুত্র মস্তাব আলী (৩৫), মুক্তার আলী (৫৫), হারিছ আলীর পুত্র ফখরুল ইসলাম (২২)। গুরুতর আহতরা সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।
জানা গেছে, শুক্রবার বিকেলে ইন্তাজ আলীর শালা মকবুল হোসেনের বাড়িতে কয়েকজন অতিথি আসেন। অতিথিরা সিএনজি অটোরিক্সা নিয়ে গ্রামের রাস্তাদিয়ে মকবুল আলীর বাড়ি যাওয়ার সময় বাঁধা প্রদান করেন মুক্তার আলীর পক্ষের লোকজন। পরবির্ততে অতিথিরা মকবুল আলীর বাড়ি থেকে যাওয়ার পথে তাদের গাড়ি থামিয়ে দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে মকবুল আলীর পক্ষ নিয়ে তার ভগ্নিপতি ইন্তাজ আলী গংরা এবং মস্তাব আলী পক্ষের লোকজনদের মধ্যে সংঘর্ষ লেগে যায়। এতে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ইন্তাজ আলীর তিন পুত্র, মহিলা ও শিশু’সহ উভয় পক্ষের অন্তত ১০জন আহত হয়। সংঘর্ষ চলাকালে একটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়। এসময় স্থানীয় লোকজন পরিস্থিতি শান্ত করে আহতদেরকে হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এঘটনায় উভয় পক্ষে মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। তবে স্থানীয় ইউপি সদস্য নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন, তিনি এলাকার মুরব্বীদের নিয়ে বিষয়টি আপোষ-মিমাংসার উদ্যোগ গ্রহন করেছেন।
এব্যাপারে ইন্তাজ আলী, গ্রামের কাচা রাস্তা দিয়ে গাড়ি নিয়ে যাতে কেউ যাতায়াত করতে না পারেন সেজন্য রাস্তার মুখে খুটি বসানো হয়। কিন্ত মস্তাব আলী পক্ষের লোকজন প্রভাবশালী হওয়ায় তারা ওই খুটি উপড়ে গাড়ি নিয়ে যাতায়াত করেন। গতকাল (শুক্রবার) আমার শশুর বাড়িতে কয়েকজন মেহমান গাড়ি নিয়ে আসলে তাদের গাড়ি থামিয়ে অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ করেন মস্তাব আলীর লোকজন। এসময় তাদেরকে গালিগালাজ না করতে আমরা অনুরোধ করলে তারা আমাদের উপর অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এতে আমরা ৬জন আহত হয়েছি।
মস্তার আলীর চাচাতো ভাই ইউনুছ আলী বলেন, আমাদের উপর আনিত অভিযোগ মিথ্যা। প্রকৃত ঘটনা হল- ইন্তাজ আলী গংরা গ্রামের রাস্তার মাটি কেটে ফেলেন। এতে আমরা বাঁধা দিলে তারা (ইন্তাজ আলী) আমাদের পক্ষের লোকজনদের উপর হামলা করে এবং মস্তাব আলীর মোটরসাইকেলটি ভাংচুর করে। তাদের হামলায় আমাদের পক্ষের তিনজন আহত হয়েছেন।
এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, সংঘর্ষের বিষয়টি এখনও আমাকে কেউ অবহিত করেনি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ