বিশ্বনাথে চাচাতো ভাইয়ের দায়েরকৃত মামলায় সাংবাদিক গ্রেফতার
বুধবার, ১৫ আগষ্ট, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথে রামপাশা-বৈরাগী-সিংগেরকাছ বাজার সড়কের বেহাল দশা : জনদূর্ভোগ  » «   বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবসে পুষ্পস্তবক অর্পন ও র‌্যালী  » «   শোকাবহ ১৫ আগস্ট আজ  » «   বিশ্বনাথে রাস্তায় গেইট নির্মাণ নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ  » «   বিশ্বনাথ ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণে প্রশাসনিক অনুমোদন  » «   শিক্ষা প্রতিষ্টানে মাদক বিরোধী কমিটির আলোচনা সভা  » «   বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভা  » «   বিশ্বনাথে ব্রাক এর ‘উপজেলা মাইগ্রেশন ফোরাম মিটিং’ অনুষ্ঠিত  » «   দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে আ’লীগের বিকল্প নেই -শফিক চৌধুরী  » «   পবিত্র হজ্ব পালন করতে স্বপরিবারে সৌদি আরব গেলেন মিছবাহ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে উদ্ধারকৃত ২২টি গরু সনাক্ত করতে থানায় জনতার ভিড়  » «   সিংগেরকাছ পাবলিক বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে নবীণ বরণ  » «   বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবস পালনের লক্ষে যুবলীগের প্রস্তুতি সভা  » «   বিশ্বনাথে স্বামীর হাতুড়ির আঘাতে স্ত্রী নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের  » «   বিশ্বনাথে ‘পরিচ্ছন্ন ও সবুজ জনপদ’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক  » «  

বিশ্বনাথে চাচাতো ভাইয়ের দায়েরকৃত মামলায় সাংবাদিক গ্রেফতার

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সিলেটের বিশ্বনাথে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আপন চাচাতো ভাইয়ের দায়েকৃত একটি মামলায় দৈনিক ইনকিলাব ও সিলেট বাণী’র বিশ্বনাথ প্রতিনিধি আব্দুস সালামকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি পুলিশ। গত রোববার (১৩মে) বিকেল ৫টায় বিশ্বনাথ নতুন বাজারস্থ তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রেফতার করেছে। সে আব্দুস সালাম উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের আব্দুর রহিমের পুত্র। গতকাল সোমবার (১৪মে) তাকে কতোয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হলে তার সাথে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া যায়। এঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিশ্বনাথের বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মি।
সূত্রে জানা যায়, আব্দুস সালামের চাচাতো ভাই, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর পরিচালক ও মৃত ইব্রাহিম আলীর পুত্র ইমরান হোসেন বাবুলের সাথে পারিবারিক বিরোধ নিয়ে একাধিক পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করা হয়। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সালিশানগণ মিমাংশা করেও দেন। সূত্রমতে ২০১৭ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি আব্দুস সালামসহ তিনজনকে আসামী করে একটি পর্নোগ্রাফী মামলা দায়ের করেন ইমরান হোসেন বাবুল। (বিশ্বনাথ থানার মামলা নং- ০৪ তাং-০৫.০২.২০১৭ইং)। এই মামলাটি দীর্ঘ তদন্ত শেষে সত্যতা প্রমানিত না হওয়ায় ২০১৭ সালের ১৫জুন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাজিব রহমান আদালতে ফাইনাল রিপোর্ট দাখিল করেন।
এদিকে আব্দুস সালামের দায়েরি মামলাটিও (বিশ্বনাথ থানার মামলা নং-২০, তাং ২৭.০৯.২০১৬ইং) আপোষের মাধ্যমে নিস্পত্তি করা হয়। কিন্তু আপোষে নিষ্পত্তি হওয়া ইমরান দায়েরকৃত মামলাটি ফাইনাল রিপোর্টের বিরুদ্ধে নারাজি দাখিল করলে আদালত তদন্তের জন্য সিআইডি পুলিশকে নির্দেশ দেন। এ মামলার প্রেক্ষিতে তদন্তকারী কর্মকর্তা সিলেট সিআইডি ইন্সপেক্টর মোঃ আব্দুল আউয়াল তাকে গ্রেফতার করেন। অপরদিকে, সাংবাদিক আব্দুস সালাম ২০১৭ সালের ২৪ ডিসেম্বর ইমরান হোসেন বাবুলের বিরোদ্ধে বিশ্বনাথ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন (যার নং- ১২০১)। আব্দুস সালাম তার ও পরিবারের জানমালের নিরাপত্তা চেয়ে ডিআইজি, সিলেট র‌্যাব ও পুলিশ সুপার বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।
মিমাংশিত মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানি ছাড়া সাংবাদিক গ্রেফতারের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তীব্র ক্ষোভ জানিয়ে আব্দুস সালামের মুক্তি দাবী করেছেন বিশ্বনাথের সিনিয়র সাংবাদিক এ এইচ এম ফিরোজ আলী, দৈনিক সমকাল প্রতিনিধি জাহাঙ্গির আলম খায়ের, দৈনিক যুগান্তরের প্রতিনিধি আশিক আলী, কে টিভি প্রতিনিধি রোহেল উদ্দিন, দৈনিক যায়যায়দিন প্রতিনিধি কামাল মুন্না, ডেসটিনি প্রতিনিধি মিছবাহ উদ্দিন, বিশ্বনাথ টুয়েন্টিফোর ডটকমের নির্বাহী সম্পাদক নবীন সোহেল।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ