বিশ্বনাথে প্রতিবেশীর হামলায় স্বামী-স্ত্রী আহত
বৃহস্পতিবার, ১৬ আগষ্ট, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
যথাযোগ্য মর্যাদায় বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবস পালিত  » «   যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত  » «   লালাবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় বিশ্বনাথের পিকআপ চালক ও হেলপার নিহত  » «   ঘাতক নূরের রায় কার্যকর না হওয়ায় আমরা সিলেটবাসী লজ্জিত -শফিক চৌধুরী  » «   বিশ্বনাথে রামপাশা-বৈরাগী-সিংগেরকাছ বাজার সড়কের বেহাল দশা : জনদূর্ভোগ  » «   বিশ্বনাথে জাতীয় শোক দিবসে পুষ্পস্তবক অর্পন ও র‌্যালী  » «   শোকাবহ ১৫ আগস্ট আজ  » «   বিশ্বনাথে রাস্তায় গেইট নির্মাণ নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ  » «   বিশ্বনাথ ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণে প্রশাসনিক অনুমোদন  » «   শিক্ষা প্রতিষ্টানে মাদক বিরোধী কমিটির আলোচনা সভা  » «   বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভা  » «   বিশ্বনাথে ব্রাক এর ‘উপজেলা মাইগ্রেশন ফোরাম মিটিং’ অনুষ্ঠিত  » «   দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে আ’লীগের বিকল্প নেই -শফিক চৌধুরী  » «   পবিত্র হজ্ব পালন করতে স্বপরিবারে সৌদি আরব গেলেন মিছবাহ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে উদ্ধারকৃত ২২টি গরু সনাক্ত করতে থানায় জনতার ভিড়  » «  

বিশ্বনাথে প্রতিবেশীর হামলায় স্বামী-স্ত্রী আহত

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: সিলেটের বিশ্বনাথে চুরির ঘটনার জের ধরে প্রতিবেশীর হামলায় আহত হয়েছেন এক হতদরিদ্র দম্পতি। আহতরা হলেন উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের কোনাউড়া নোয়াগাঁও গ্রামের দিনমজুর সুনা উল্লাহ (৫০) ও তার স্ত্রী রানী বেগম (৪০)। বৃহস্পতিবার (১০মে) সকালে এঘটনাটি ঘটে।
আহত সুনা উল্লাহ জানান, প্রতিদিনের ন্যায় গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তিনি ও পরিবারের অন‌্যান‌্য সদস্যরা ঘুমিয়ে পড়লে ঘরের দরজা খুলে একটি মোবাইল ফোন ও নগদ ৫০হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায় চোর। এসময় ঘরে চোর প্রবেশ করেছে বুঝতে পেয়ে পরিবারের সদস্যরা ঘুম থেকে জেগে উঠে চোরকে ধাওয়া করেন। কিন্ত ততক্ষণে চুরি করে চোর পালিয়ে যায়। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় সুনা উল্লাহর স্ত্রী চোরকে নিয়ে বিভিন্ন মন্তব্য করলে তাতে রেগে যান প্রতিবেশী মৃত সাইদ আলীর পুত্র রফিক আলী (৩৫)। এসময় তাদের উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে রফিক আলী ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা সুনা উল্লাহর ঘরে প্রবেশ করে তাকে ও তার স্ত্রী রানী বেগমকে মারধর করে আহত করেন। আহতরা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানান সুনা মিয়া।
অভিযুক্ত রফিক আলী বলেন, আমি আজ সকালে বাড়ির রাস্তায় কাজ করছিলাম। তখন রানী বেগম আমাকে গালাগালি করেন। একপর্যায়ে সুনা উল্লাহ ও তার পুত্র আমার উপর হামলা করলে আমাদের উভয়ের মধ্যে মারামারি হয়।
বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, এব্যাপারে এখনও অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ