সোমবার, ২৫ মার্চ, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথের মারুফ হোসেনের এমবিএ ডিগ্রী অর্জন  » «   উত্তর বিশ্বনাথ আমজদ উল্লাহ ডিগ্রি কলেজে মোটিভেশন সভা  » «   নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার প্রতিবাদে বিশ্বনাথে মানববন্ধন  » «   বিশ্বনাথে ‘আলোকিত খাজাঞ্চী’ ওয়েবসাইটের শুভ উদ্বোধন  » «   বিশ্বনাথে খাজাঞ্চী স্টেশন স্পোটিং ক্লাব’র ৮ম ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন  » «   বিশ্বনাথে হিরামন সমাজ কল্যাণ স্পোটিং ক্লাব’র ফুটবল টুর্নামেন্ট সম্পন্ন  » «   বিশ্বনাথের খাজাঞ্চীতে ৮ম ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল আজ  » «   বিশ্বনাথে প্রয়াত প্রভাত বৈদ্যের স্বরণে কৃষক লীগের শোক সভা  » «   বিশ্বনাথে শতাধিক প্রতিবন্ধীর মাঝে প্রবাসীর অর্থ বিতরণ  » «   স্পেশাল অলিম্পিকে সোনা জিতলেন বিশ্বনাথের তানভীর  » «   কোরিয়ার লটারিতে বিজয়ী হলেন বিশ্বনাথের সাইফ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে খাজাঞ্চীতে ৩য় টি-টোয়েন্টি ইউনিয়ন লীগ সম্পন্ন  » «   বিশ্বনাথবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালেন আলতাব হোসেন  » «   বিশ্বনাথ উপজেলাবাসীকে কৃতজ্ঞতা জানালেন মিছবাহ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে আ’লীগ সমর্থিত জুলিয়া বেগম মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত  » «  

বিএনপি নেতাদের লেনদেনের তথ্য চেয়ে ৭ ব্যাংকে দুদকের চিঠি

বিশ্বনাথনিউজ২৪ :: বিএনপির শীর্ষ আট নেতাসহ ১০ জনের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়ে ৭ ব্যাংকে চিঠি পাঠিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আজ ০৪ এপ্রিল বুধবার দুদকের উপপরিচালক সামছুল আলম সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোতে আলাদা আলাদা চিঠি পাঠিয়েছেন।

যেসব ব্যাংকে চিঠি দেওয়া হয়েছে, সেগুলো হলো এইচএসবিসি, স্ট‌্যান্ডার্ড চার্টার্ড, ডাচ্‌-বাংলা, ন‌্যাশনাল, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী, আরব বাংলাদেশ ও ঢাকা ব‌্যাংক। চিঠিতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের যাবতীয় হিসাবের বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়েছে।
গত সোমবার মানি লন্ডারিং, সন্দেহজনক ব্যাংক লেনদেনসহ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিএনপির শীর্ষ ৮ নেতাসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক। এঁরা হলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির চার সদস্য—খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও মির্জা আব্বাস; দুই ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু ও এম মোর্শেদ খান; যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে ও দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল। এ ছাড়া এম মোর্শেদ খানের ছেলে ফয়সাল মোর্শেদ খানের বিরুদ্ধেও অনুসন্ধান হচ্ছে।
দুদক সন্দেহজনক লেনদেনের কথা বললেও বিএনপি নেতারা বলছেন, তাঁদের চাপে রাখতেই সরকারের কৌশলের অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নিয়েছে দুদক।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ