সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিজয় দিবসে স্মৃতিস্তম্ভে বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের পুষ্পস্তবক অর্পণ  » «   ৭১’র শহীদদের স্মরণে বিশ্বনাথ কেন্দ্রীয় স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ  » «   বিশ্বনাথে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক লিলু মিয়ার ইন্তেকাল : দাফন সম্পন্ন  » «   সিলেট-২ : একই অভিযোগে সরদার’র প্রার্থীতা বহাল থাকলেও লুনা’র স্থগিত  » «   বিশ্বনাথে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালন  » «   বিশ্বনাথের অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার : আটক ৩  » «   আজ মহান বিজয় দিবস  » «   ‘ধানের শীষ’র সমর্থনে বিশ্বনাথের মাছুখালী বাজারে পথসভা  » «   সিলেট-২ আসনে মুহিব-সরদারকে পেয়ে উজ্জীবিত আ’লীগ নেতাকর্মীরা  » «   বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের দায়েরকৃত মামলায় ছাত্রদল নেতা গ্রেফতার  » «   আমি পরাজিত হলে আওয়ামী লীগও পরাজিত হবে : ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী  » «   শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে বিশ্বনাথে উপজেলা আ’লীগের সভা  » «   সিলেট-২ আসনে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন মুহিবুর রহমান  » «   বিশ্বনাথে বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধে প্রশাসনের শ্রদ্ধাঞ্জলি  » «   বিশ্বনাথের গোয়ালগাঁও গ্রামে ধানের শীষের সমর্থনে উঠান বৈঠক  » «  

বিশ্বনাথে সালিশ বৈঠকে দু’পক্ষের সংঘর্ষ : আহত ১০

বিশ্বনাথনিউজ২৪:: সিলেটের বিশ্বনাথে মসজিদের ইমাম নিয়ে সালিশ বৈঠকে দু’পক্ষের সংঘর্ষে অনন্ত ১০জন আহত হয়েছেন। আজ বুধবার বেলা ২টায় উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের বাওনপুর গ্রামের আলতাব আলী ও হাজী আব্দুল ওয়াহিদ লোকজনের মধ্যে এঘটনাটি ঘটে। আহতরা হলেন- বাছিত মিয়া, আঙ্গুর মিয়া, রিপন আহমদ, মারুফ মিয়া, মধ্যস্থকারী মহবুল মিয়া। বাকি আহতদের তাৎক্ষনিক নাম জানা যায়নি। আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানাগেছে। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, বাওনপুর গ্রামের জামে মসজিদের ইমামকে নিয়ে দু’টি পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এ বিষয়ে আজ বুধবার দুপুরে উভয় পক্ষের সম্মতিক্রমে এলাকার জনপ্রতিনিধি, সালিশী ব্যক্তিবর্গ মুরব্বীদের নিয়ে গ্রামের মসজিদ প্রাঙ্গনে বৈঠক বসেন। বৈঠক চলাকালি সময়ে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথাকাটিকাটি শুরু হয়। এতে সালিশ বেঠকে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন মধ্যে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। উভয় পক্ষ ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন। এতে উভয় পক্ষের লোকজন’সহ মধ্যস্থকারী ব্যক্তি আহত হন। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যানসহ উপস্থিত সালিশী ব্যক্তিবর্গ ও এলাকার মুরব্বীরা চেষ্ঠা চালিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন। আগামী বুধবার ফের উভয় পক্ষের লোকজনকে নিয়ে সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে জানাগেছে।

সালিশ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরী, লামাকাজি ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, খাজাঞ্চী ইউপি চেয়ারম্যান তালুকদার গিয়াস উদ্দিন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান পীর লিয়াকত হোসাইন, নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী, সালিশী ব্যক্তিত্ব মহল মিয়া, মফিজ আলী, আশরাফুল চৌধুরী, রিয়াজ উল্লা প্রমুখ।

এব্যাপারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরী বলেন, শালিস বৈঠকে কথাকাটাটির মধ্যে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে সকলের সহযোগিতায় পরিস্থিতি শান্ত করা হয়। আগামী বুধবার ফের উভয় পক্ষের লোকজনকে নিয়ে সালিশ বৈঠক আহবান করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ