সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিশ্বনাথে নুনু মিয়ার সমর্থনে দশঘর ইউনিয়ন আ’লীগের যৌথ কর্মীসভা  » «   খাজাঞ্চী একাডেমী এন্ড উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ  » «   বিশ্বনাথের রামপাশায় বিএনপির মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  » «   বিশ্বনাথে হামলার অভিযোগে ইউপি সদস্যের মামলা দায়ের  » «   বিশ্বনাথে যুক্তরাজ্য প্রবাসীর বিরুদ্ধে ভাই-বোনদের মামলা  » «   ইলিয়াসপত্নী লুনার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে  » «   দৌলতপুর ইউনিয়ন এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট’র বৃত্তি বিতরণ  » «   কবি আল মাহমুদ আর নেই  » «   বালাগঞ্জে মোস্তাকুর রহমান মফুরের সমর্থনে উপজেলা আ’লীগের কর্মীসভা  » «   নুনু মিয়ার সমর্থনে বিশ্বনাথ ইউনিয়ন আ’লীগের যৌথ কর্মীসভা  » «   ইলিয়াসপত্নী লুনা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি  » «   যে কারণে জামায়াত থেকে পদত্যাগ করলেন ব্যারিস্টার রাজ্জাক  » «   বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন মিছবাহ উদ্দিন  » «   বিশ্বনাথে নুনু মিয়ার সমর্থনে অলংকারী ইউনিয়ন আ’লীগের যৌথ কর্মীসভা  » «   বিশ্বনাথের টেংরায় ১৭তম তাফসীরুল কোরআন মাহফিল সম্পন্ন  » «  

বিশ্বনাথে এবার ২৫টি মন্ডপে দুর্গোপূজা আয়োজন

downloadনিজস্ব প্রতিবেদক :: সনাতন ধর্মালম্বীদের সর্ববৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা প্রতিবছরের ন্যায় এবারেও উৎসবের আমেজ নিয়ে সিলেটের বিশ্বনাথে ২৫টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে সার্বজননী ২২টি মন্ডপ ও ব্যক্তিগত ৩টি মন্ডপ রয়েছে। পূজা মন্ডপের মধ্যে অধিক ঝুকিপূর্ণ ৮টি আর ঝুঁকি পূর্ণ ৪টি হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ প্রশাসন। সার্বক্ষনিক মাঠে থাকবে মোবাইল টিম। এ উৎসবকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আগামী ৭ অক্টোবর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব। পূজার ৬দিন বাকি থাকায় মন্ডপগুলোকে শেষ প্রস্তুতির কাজ সেরে নিচ্ছেন সকলেই।

এদিকে, সনাতন ধর্মবলম্বীদের ধর্মীয় প্রধান উৎসব দুর্গাপূজা সফলভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সঙ্গে উপজেলা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পুলিশ প্রশাসনের তালিকা অনুযায়ী অধিক ঝুকিপূর্ণ মন্ডপগুলো হলো- উপজেলার দূর্গাবাড়ী দিঘলী মন্ডপ, একতা যুব সংঘ দিঘলী মন্ডপ, চন্দ্রগ্রাম মন্ডপ, বৃন্দাবন জিউর আশ্রম বৈরাগী বাজার মন্ডপ, বিশ্বনাথ সদর পুরান বাজার মন্ডপ, কালিগঞ্জ মন্ডপ, কালিজুরি বাগিছা বাজার মন্ডপ।
ঝুঁকিপূর্ণ মন্ডপগুলো হলো-দিঘলী উত্তর পাড়া মন্ডপ, সনাতন সংঘ চন্দ্রগ্রাম মন্ডপ, চরচন্ডী মন্ডপ, সূর্যদয় সনাতন সংঘ মদনপুর-নোয়ারাই মন্ডপ।
উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত আর্চায্য বলেন, সার্বজনীন ২২টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মীয় উৎসব পূজা পালন করার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

থানার ওসি মনিরুল ইসলাম পিপিএম বলেন, উপজেলার পূজা মন্ডপগুলোতে পুলিশ মোতায়েন থাকবে। পূজা মন্ডপগুলোতে যারা বিশৃংঙ্খলা সৃষ্টি করা চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী অফিসার অমিতাভ পরাগ তালুকদার বলেন, উপজেলার প্রতিটি পূজামন্ডপে ৫শত কেজি করে চাল বরাদ্দ দেয়ার সিন্ধান্ত গৃহিত হয়েছে। পূজায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে উপজেলা প্রশাসনের সজাগ দৃষ্টি রয়েছে। ইতি মধ্যে পূজা পরিষদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

am-accountancy-services-bbb-1

সর্বশেষ সংবাদ